মেয়েদের ইমপ্রেস করার ফেসবুক স্ট্যাটাস

আমাদের আজকের লেখা থেকে পাঠকগণ খুব গুরুত্বপূর্ণ কিছু পরামর্শ পেতে চলেছেন। অনেক ভাইরা আমাদের আজকের লেখা টি দেবার জন্য কমেন্ট বক্সে অনেক অনুরোধ করেছিলেন। সবার অনুরোধের প্রেক্ষিতে আজ আমরা এই লেখাটি পোস্ট করতে চলেছি। আশা করি আজকের এই লেখা থেকে আপনারা অনেক উপকৃত হবেন এবং এই লেখার পরবর্তী পার্ট পাওয়ার জন্য কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত জানাবেন। আমাদের আজকের আলোচনা এখান থেকে শুরু করা যাক।

আপনাদের নিশ্চয়ই বুঝতে বাকি নেই আজ আমরা কোন বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করব। অনেক বন্ধুরা অনুরোধ করেছিলেন মেয়েদের ইমপ্রেস করার মত স্ট্যাটাস নিয়ে কিছু পরামর্শ দিতে। আজ আমরা মেয়েদের ইমপ্রেস করার মত স্ট্যাটাস নিয়ে পরামর্শ দিতেই এই পোস্ট তুলে ধরছি। এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনারা আপনার পছন্দের মেয়েটিকে খুব সহজে ইমপ্রেস করতে পারবেন। আপনি যদি সত্যিই কোন মেয়েকে ইমপ্রেস করতে চান তাহলে পুরো লেখাটা মনোযোগ দিয়ে পড়বেন। আপনার জন্য বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ এই পোস্টে রয়েছে।

আমাদের আশেপাশে যে মানুষগুলো রয়েছে তাদের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে সবাই – ই চায়। অনেকে তাদের নিজস্ব গুণের মাধ্যমে তাদের চারপাশে মানুষের সুনজর পেয়ে থাকে। আপনিও এখন থেকে সবার আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হতে পারবেন তবে আপনাকে বেশ কিছু বদ অভ্যাস পরিত্যাগ করতে হবে।

যেহেতু আজ আমরা মেয়েদের ইমপ্রেস করার মত ফেসবুক স্ট্যাটাস নিয়ে আলোচনা করতে এসেছি তাই অন্য কোন কথা নিয়ে আলোচনা না করাই ভালো। আপনি যদি কোন মেয়েকে পছন্দ করে থাকেন এবং সেই মেয়েটির যদি আপনার ফেসবুকের ফ্রেন্ডলিস্টে থাকে তাহলে আপনি তাকে নিশ্চয়ই নিয়মিত মেসেজ করে থাকেন। আপনি তার সাথে নিয়মিত কথা বলে থাকলে অবশ্যই জেনে নেওয়ার চেষ্টা করেছেন সেই মেয়েটির ভালোলাগা সম্বন্ধে। আপনি যদি সেই মেয়েটির ভালোলাগা সম্বন্ধে জেনে নিতে পারেন তাহলে সামনে বেশ কিছু উপায় অবলম্বন করে তার মনে জায়গা করে নিতে পারবেন।

মেয়েটির ভালোলাগার ব্যাপারগুলো নিয়ে আপনি একটি লিস্ট করে ফেলুন। এরপর সেই লিস্ট থেকে একটি একটি করে টপিকঃ আপনি সিলেক্ট করুন এবং তা নিয়ে স্টাডি করুন। যেমন ধরেন, আপনি যে মেয়েটিকে পছন্দ করেন সে রবীন্দ্রনাথের গল্প পড়তে ভালোবাসে। তোর সেই মেয়েটি যদি রবীন্দ্রনাথের গল্প করতে ভালবাসে তাহলে আপনিও রবীন্দ্রনাথের গল্প নিয়ে কিছুদিন স্টাডি করুন। এরপর রবীন্দ্রনাথকে নিয়ে এবং রবীন্দ্রনাথের গল্প নিয়ে আপনার ফেসবুক প্রোফাইলে একটি বড়সড়ো পোস্ট লিখে ফেলুন। দেখবেন সেই মেয়েটি আপনার পোস্টটিতে খুব ভালোভাবে সারা দিয়েছে এবং তার সাথে আপনার পছন্দ মিলে যাওয়ার জন্য সে মনে মনে খুশিও হয়েছে।

আরেকটি উদাহরণ দিতে গেলে আমরা বলতে পারি আপনি যে মেয়েটিকে পছন্দ করেন সে হয়তো কার্টুন দেখতে ভালোবাসে। সে যে কার্টুন সবচেয়ে বেশি ভালোবাসে সে কার্টুনটি আপনিও কয়েকটা পর্ব দেখে ফেলুন, এরপর সে কয়েকটি পর্ব নিয়ে একটি রিভিউ পোস্ট আপনার ফেসবুক প্রোফাইলে লিখে ফেলুন। এরপর দেখবেন সেই মেয়েটি নিজের অজান্তেই আপনার প্রতি দুর্বল হয়ে পড়বে।

আপনি যদি মেয়েটির সাথে বেশ কিছুদিন ধরে কথা বলা চালিয়ে যেতে থাকেন তবে তাকে নিয়ে সুন্দর সুন্দর কথা আপনার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখে ফেলুন। আপনি হয়তো তার নাম আপনার পোস্টের মধ্যে উল্লেখ করবেন না কিন্তু এমনভাবে লিখবেন যেন সে বুঝা যায় এই লেখা টি আপনি তার জন্যই লিখেছেন। আপনি বিখ্যাত লেখকদের সুন্দর সুন্দর কবিতাগুলো আপনার ফেসবুক প্রোফাইলে লিখে ফেলুন এবং লেখার শেষে সাইড নোট দিয়ে দিন যে প্রিয় মানুষটির জন্য ছিল। মেয়েটি হয়তো বুঝতে পারবে যে প্রিয় মানুষ বলতে আপনি তাকে বুঝিয়েছেন। তাছাড়া আপনি নিজে থেকেও কোন ছন্দ অথবা কবিতা লিখে তার নামে উৎসর্গ করতে পারেন। এছাড়া আরো অনেক স্ট্যাটাস লেখার উপায় আমাদের কাছে রয়েছে এবং পরবর্তী পোস্টে আমরা তা আপনাদের সামনে উপস্থাপন করব। আশা করি আমাদের পরবর্তী পোষ্ট আসা পর্যন্ত আপনারা অনেক অনেক ভালো থাকবেন। আমাদের পোস্টটি পড়ার পর যদি আপনি আপনার পছন্দের মানুষকে ইম্প্রেস করতে পারেন তাহলে আমাদের কমেন্ট বক্সে গিয়ে জানিয়ে দিন। আমাদের পোষ্ট পড়ার পরও যদি আপনার পছন্দের মানুষকে ইমপ্রেস করতে সক্ষম না হয় তবে সে কথা ও আমাদের কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন এবং আরো পরামর্শ নিয়ে নিতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.