আজকে বাংলা কত তারিখ? বাঙ্গালী ক্যালেন্ডার ২০২২ ডেট টুডে – আজকের বাংলা ক্যালেন্ডারের তারিখ

আজকে বাংলা তারিখ কত তা জানতে আমাদের ওয়েবসাইট এর নিচে চলে যান। সেখানে আমরা প্রতিদিন কত তারিখ চলমান থাকে সে সম্পর্কে তথ্য আপডেট করে থাকি। তাই প্রত্যেক দিনের তারিখ জানতে আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন অথবা আমাদের ওয়েবসাইট আপনাদের মোবাইল ফোনের ব্রাউজারে সেভ করে রাখতে পারেন। তাই আজকে বাংলা কত তারিখ এবং কোন মাস চলছে তা জানতে এই পোষ্ট ভালোমতো পড়বেন এবং আপনাদের সুবিধার জন্য তারিখ বড় অক্ষরে লিখে দেওয়া হয়েছে। বাংলা তারিখ প্রত্যেকটি বাঙালির জীবনে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় এবং তারিখের ওপরে নির্ভর করে একজন মানুষ তার জীবনের গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো সম্পাদন করে থাকে।

তবে ঋতু পরিবর্তনের কারণে আমরা যখন বুঝতে পারি এটি কোন মাস চলছে তখন তারিখ জেনে নেওয়াটা ও জরুরি হয়ে পড়ে। বিভিন্ন অফিসিয়াল কাজের জন্য বা প্রাতিষ্ঠানিক কাজের জন্য তারিখ একজন মানুষের জীবনে লক্ষ্য নির্ধারণ করে থাকে এবং নির্ধারিত তারিখে একজন মানুষ তার যাবতীয় কাজ করতে পারে। বর্তমান সময়ে অফিশিয়াল কাজকর্ম ইংরেজিতে পরিচালিত হয়ে থাকলেও বাংলা তারিখ এর প্রয়োজনীয়তা রয়েছে।

আমরা যেহেতু বাঙালি তাই বাংলা তারিখ এর প্রচলন আমরাই সকলের মাঝে বর্তমান রাখতে পারি। তাই বিভিন্ন কাজ অথবা আবহমান তারিখ অনুযায়ী জীবনকে পরিচালিত করতে হবে। তাই আপনারা আজকে বাংলা তারিখ কত এবং বাংলা ক্যালেন্ডার আজকে কত তারিখ চলছে তা জানতে নিচের দিকে চলে যান। তাছাড়া ইংরেজি তারিখ এর সঙ্গে বাংলা তারিখের সামঞ্জস্যতা কোথায় এবং কিভাবে ইংরেজি তারেকের সঙ্গে মিল রেখে বাংলা তারিখ বের করবেন তা যদি জানতে চান তাহলে এই পোষ্টের নিচে সেই তথ্য দিয়ে দেওয়া হল।

আজকে বাংলা কত তারিখ

আজকে বাংলা কত তারিখ চলছে তা এখান থেকে জেনে নিন। বাংলা 12 মাসের প্রত্যেক মাসের প্রতিদিন আমরা আপটুডেট করে রাখি। তাই আমাদের ওয়েবসাইট থেকে আপনারা সবচাইতে নির্ভুলভাবে আজকে বাংলা কত তারিখ তা জানতে পারবেন। বাঙালির জীবনে বর্তমান সময়ে বাংলা তারিখের ব্যবহার কমে গিয়েছে বলে আমরা ইংরেজি তারিখ এর ওপরে নির্ভরশীল হয়ে উঠেছি। প্রাতিষ্ঠানিক বিভিন্ন ধরনের কার্যক্রম ইংরেজি তারিখ এর ওপরে নির্ভর করে সম্পাদিত হয়ে থাকে। তবে একজন বাঙালি জীবনের বাঙালি সত্তা প্রকাশের উদ্দেশ্যে আমাদেরকে বাংলা তারিখের ব্যবহার করতে হবে।

প্রত্যেকটি প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন অনুষ্ঠান ইংরেজি তারিখে যেমন অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে তেমনি সেখানকার সেই অনুষ্ঠান পরিচালনা করার জন্য ইংরেজি তারিখ বলার পাশাপাশি বাংলা তারিখ বলতে হবে। আপনি কারো কোনো অনুষ্ঠানে কোন একটি গুরুত্বপূর্ণ বক্তৃতা দেওয়ার সময় যখন বলবেন আজকে এত তারিখে আপনি এখানে বক্তৃতা দিতে এসেছেন এবং এই দিনটি আপনার জন্য ভালো, সেই সাথে বাংলা তারিখ বলতে ভুল করবেন না।

এখন অনেকেই বাড়িতে ক্যালেন্ডার রাখেন এবং ক্যালেন্ডারে আপনারা অবশ্যই সরকারি ছুটিসহ বাংলা এবং ইংরেজি সমন্বয়ের ক্যালেন্ডার কিনবেন। তাছাড়া প্রত্যেকের হাতে এখন ইন্টারনেট কানেকশন সমৃদ্ধ ফোন থাকার কারণে গুগল থেকে আজকে বাংলা কত তারিখ তা সব সময় জানতে পারে। তাই আপনারা এখান থেকে বাংলা তারিখ আজ জেনে নিন।

১২ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

৩০শে সফর, ১৪৪৪ হিজরি

মঙ্গলবার

শরৎকাল

১/ ইংরেজি তারিখ থেকে বাংলা তারিখ বের করাঃ

আপনি কি ইংরেজি তারিখ থেকে বাংলা তারিখ বের করার নিয়ম জানতে আগ্রহী? তাহলে আপনাদের এখানে খুব সহজভাবে আমরা বুঝিয়ে দিতে চাই যে ইংরেজি তারিখ থেকে বাংলা তারিখ কিভাবে বের করবেন। বাংলা এবং ইংরেজি মাস 365 দিনে আবর্তিত হয়ে থাকে। তবে ইংরেজি মাসের কোন দিন তিরিশে হয়ে থাকে এবং কোন দিন ৩১শে হয়ে থাকে। তবে বাংলা বছরের প্রথম পাঁচ মাস 31 দিনে হয় এবং পরবর্তী মাসগুলো 30 দিনে হয়। তবে এখানে খুব সহজ একটি সমীকরণ রয়েছে যার মাধ্যমে আপনারা ইংরেজি তারিখ থেকে বাংলা তারিখের আনুমানিক দিন সম্পর্কে ধারণা অর্জন করতে পারবেন।

ইংরেজি মাসের হিসেব অনুযায়ী ইংরেজি মাসের মাঝামাঝি সময়ে বাংলা তারিখ এবং মাস শুরু হয়। এপ্রিল মাসের 14 তারিখে বাংলা বৈশাখ মাস শুরু হয়। এভাবে আপনারা যখন ইংরেজি মাসের মাঝামাঝি সময় আসবেন তখন নির্ধারিত মাস হিসাব করে বের করবেন। তবে ইংরেজি মাসের সঙ্গে বাংলা মাসের হিসাব মাঝামাঝি সময় থেকে শুরু করলেও তারিখের কমবেশি হবে। কারণ সকল মাস নির্দিষ্ট কোন তারিখের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। তাছাড়া ইন্টারনেট কানেকশনের যুগে আপনারা চাইলেই গুগল থেকে ইংরেজি তারিখ এবং বাংলা তারিখ সহ অন্যান্য তারিখ দেখে নিতে পারবেন।

২/ ক্যালেন্ডার এর সাহায্যে বাংলা তারিখ দেখাঃ

বিভিন্ন মানুষ ব্যক্তিগতভাবে ক্যালেন্ডারে ছাপিয়ে মানুষের মাঝে বিতরণ করে থাকেন। তবে একজন সচেতন নাগরিক হিসেবে এবং দায়িত্ববান অভিভাবক হিসেবে আপনি আপনার ঘরে একটি ক্যালেন্ডার রাখতে পারেন। ক্যালেন্ডার রাখলে খুব সহজেই সেখান থেকে বিভিন্ন তারিখ নির্ণয় করা যায় এবং সেই তারিখ অনুযায়ী জীবনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাজ সম্পাদন করা যায়। আপনারা বাজার থেকে যখন ক্যালেন্ডার কিনবেন তখন সেই ক্যালেন্ডার কিনতে হলে বাংলা এবং ইংরেজি তারিখ আছে এমন ক্যালেন্ডার কিনবেন।

তাছাড়া সরকারি ছুটি দিয়ে দেওয়া আছে এমন ক্যালেন্ডার দেখে কিনলে আপনাদের জন্য অনেক সুবিধা হবে। তবে প্রতিষ্ঠানিক বিভিন্ন কাজকর্ম ইংরেজিতে সম্পন্ন হয়ে থাকে বলে ইংরেজি তারিখ বড় অক্ষরে লিখা থাকে এবং বাংলা তারিখ ছোট অক্ষরে লিখা থাকে। তাই আপনারা ক্যালেন্ডারে বাংলা মাসের নাম কোন রঙে লিখা আছে তা দেখে নিবেন এবং সেই রঙের তারিখ ইংরেজি তারিখ এর নিচে খুঁজলেই পেয়ে যাবেন।

৩/ গুগল থেকে বাংলা তারিখ বের করাঃ

গুগল থেকে আমরা যেমন সকল তথ্য সংগ্রহ করতে পারি তেমনি ভাবে বাংলা তারিখ এখান থেকে জেনে নেওয়া যায়। আমরা আপনাদের সুবিধার জন্য গুগল থেকে যাতে তারিখ জানতে পারেন তার জন্য সব সময় তারিখের হালনাগাদ করে থাকি। আপনারা সঠিকভাবে একেবারে নির্ভুল তারিখ আমাদের ওয়েবসাইট থেকে প্রতিনিয়ত দেখতে পারবেন। আজকের এই তারিখ দেখে নেওয়ার পরে আপনি যদি আবার কালকে দেখতে আসেন তাহলে দেখবেন যে তারিখ পরিবর্তিত হয়েছে। প্রত্যেকটি মানুষ যাতে এই সুবিধা গ্রহণ করতে পারে তার জন্য আমাদের ওয়েবসাইটে গুগল থেকে তারিখে দেখে নেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

বাঙ্গালী ক্যালেন্ডার ডেট টুডে

আপনি কি বাঙালি ক্যালেন্ডার ডেট টুডে জানতে চান? বাঙ্গালীদের সুবিধার জন্য বাংলা সকল মাসের বর্তমান তারিখ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রদর্শন করানো হয়ে থাকে। যেহেতু বাংলা তারিখ একজন বাঙ্গালীর জীবনের গুরুত্বপূর্ণ দিক সেহেতু বিভিন্ন কাজকর্ম বা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পাদন করার জন্য বাংলা তারিখ এর উপরে মানুষজন নির্ভরশীল হয়ে থাকে। তাই বাঙালি ক্যালেন্ডার এর আজকের তারিখ আমাদের ওয়েবসাইটে দিয়ে দেওয়া হয়েছে যাতে যেকোনো বাঙালি মানুষ এই কালেন্ডার এর তারিখে দেখে নিয়ে তার গুরুত্বপূর্ণ কাজ অথবা গুরুত্বপূর্ণ দিনে নিজেদের সুবিধা অনুযায়ী কাজ সম্পন্ন করতে পারে।

প্রথম প্রকাশিত বাংলা পঞ্জিকা কবে প্রকাশিত হয়

অনেকেই জানতে চান প্রথম প্রকাশিত বাংলা পঞ্জিকা কবে প্রকাশিত হয়েছিল। তাছাড়া এটি বিভিন্ন পরীক্ষায় প্রশ্ন আসে এবং অনেকের জানার আগ্রহের সুবিধার্থে আমাদের ওয়েবসাইট এখানে তা দিয়ে দেওয়া হল। আজ থেকে প্রায় 200 বছর আগে অর্থাৎ 1818 খ্রিস্টাব্দে বাংলা পঞ্জিকা প্রথম প্রকাশিত হয়। সেই প্রকাশিত পত্রিকায় তারেক প্রকাশের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের হিন্দু ধর্মের ওপর নির্ভর করে দিক নির্দেশনা প্রদান করা। পরবর্তীতে এই পঞ্জিকা প্রকাশিত হওয়ার পর 1857 খ্রিস্টাব্দে ভারত উপমহাদেশের সর্বোচ্চ পরিমাণ বিক্রি হয় এবং মানুষের মধ্যে বাংলা পঞ্জিকা সংগ্রহ করার প্রতি আগ্রহ দেখা যায়।

বেণীমাধব শীলের বিখ্যাত বাংলা পঞ্জিকা

আমাদের ওয়েবসাইটের যেমন তারিখ সম্পর্কিত প্রত্যেকটি তত্ত্বের হালনগদ জনগন কে জানানো হয়ে থাকে তেমনি ভাবে হিন্দু ধর্মের ব্যক্তিদের জন্য যারা বেণীমাধব শীলের পঞ্জিকা অনুসরণ করেন তাদের উদ্দেশ্যে এই পঞ্জিকা ডাউনলোড করার ব্যবস্থা করেছি। আপনারা বেণীমাধব শীলের বিখ্যাত বাংলা পঞ্জিকা আমাদের ওয়েবসাইট থেকে সফট কপি সংগ্রহ করতে পারবেন এবং এই পঞ্জিকা দেখে আপনাদের দৈনন্দিন জীবনের যাবতীয় কাজ সম্পাদন করতে পারবেন। তাই বেণীমাধব শীলের বিখ্যাত বাংলা পঞ্জিকা পেতে নিচের দেওয়া লিংকে ক্লিক করুন।

শ্রী মদন গুপ্তের ফুল পঞ্জিকা

ভারত উপমহাদেশ এর পাশাপাশি বিভিন্ন জায়গায় শ্রী মদন গুপ্তের ফুল পঞ্জিকা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। তাই আপনারা যাতে শ্রী মদন গুপ্তের ফুল পঞ্জিকা অনলাইন থেকে ডাউনলোড করতে পারেন তার জন্য আমাদের ওয়েবসাইটে এই পঞ্জিকা ডাউনলোড করার জন্য লিংক প্রদান করা হলো। আপনারা শ্রী মদন গুপ্তের পঞ্জিকা ডাউনলোড করার জন্য লিংকে ক্লিক করুন এবং পরবর্তী পেজে গিয়ে তার সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ডাউনলোড করে নিন। পঞ্জিকা সংক্রান্ত এবং তারিখ সংক্রান্ত যেকোন তথ্য হালনাগাদ পেতে আমাদের ওয়েবসাইটের সঙ্গে সংযুক্ত থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.