স্কুল বন্ধুদের নিয়ে স্ট্যাটাস

স্কুল আমাদের প্রত্যেকের কাছেই একটি আবেগের নাম। আমরা পৃথিবীর যে প্রান্তেই থাকি না কেন ছোটবেলায় যে স্কুলে পড়তাম তার স্মৃতি কখনোই ভোলা সম্ভব নয়। স্কুলের স্মৃতিগুলো সাধারণত আমাদের বন্ধুদের ঘিরেই। একসাথে যেসব বন্ধুরা পড়তাম তাদের সবার সাথেই সুন্দর সুন্দর মুহূর্ত কাটানো হয়েছে। এই সুন্দর সুন্দর মুহূর্ত গুলো জীবনে আর কখনো ফিরে পাওয়া সম্ভব নয়। সত্যিই, স্কুল জীবনের কোন তুলনা হয় না।

জীবনে চলার পথে আমাদের হাজার হাজার বন্ধু তৈরি হয়। এইসব বন্ধু গুলোর মধ্যে কারো সাথে শেষ পর্যন্ত সম্পর্ক থাকে কারো সাথে আবার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেলেও স্কুলের বন্ধুরা সব সময় আমাদের কাছে স্পেশাল। স্কুলের বন্ধুদের স্মৃতি সব সময় আমাদের বইয়ের বেড়াতে হয়। সেই টিফিন পিরিয়ডে একসাথে টিফিন ভাগ করে খাওয়া, ক্লাস শুরুর আগে স্কুল মাঠে দৌড়াদৌড়ি খেলা, স্কুল ছুটির পর একসাথে বাড়ি ফেরা এই সব কথাগুলো ভাবতে গেলে আমরা ভীষণ স্মৃতি কাতর হয়ে পড়ি।

প্রথমে আসি প্রাইমারি স্কুলের বন্ধুদের নিয়ে আলোচনায়। প্রাইমারি স্কুলের বন্ধু গুলো আমাদের কাছে সবচেয়ে বেশি স্পেশাল হয় কারণ একদম অবুঝ বয়স থেকে তাদের সাথে বন্ধুত্ব তৈরি হয়। প্রাইমারি স্কুলের বন্ধুদের সাথে শেষ পর্যন্ত হয়তো যোগাযোগ খুব একটা থাকে না তবুও মনের গভীরে বড় একটা স্থান জুড়ে তারা থাকে। ছোটবেলায় অবুঝের মত কত একসাথে মারামারি করা হয়েছে, একসাথে কত পাগলামি করা হয়েছে, এই স্মৃতি কি এত সহজে বলা যায়?

হাই স্কুলের বন্ধু গুলো আমাদের আরেকটু বেশি ঘনিষ্ঠ হয় কারণ এই বন্ধুগুলো আমরা কৈশোর বয়সে পেয়ে থাকি। বয়সন্ধিকালে পাওয়া বন্ধুগুলো সত্যিই আমাদের কাছে অনেক বড় একটি পাওয়া। ছোট থেকে বড় হওয়ার মাঝখানের যে সময়টা সেই সময় গুলোতে আমরা এই বন্ধুগুলোকে পেয়ে থাকি। জীবনের ভালো-মন্দ সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে এই সময়টা খুব বেশি গুরুত্বপূর্ণ। হাই স্কুলে পড়া অবস্থায় আপনি সঠিক বন্ধু নির্বাচন না করতে পারলে তা আপনার জীবনে খুব খারাপ একটি প্রভাব ফেলবে।

কলেজে উঠার পর বন্ধুত্বের গভীরতা অনেকটাই কমে যায়। পড়াশোনা ও অন্যান্য কাজের চাপে বন্ধুদের খুব একটা সময় দেওয়া সম্ভব হয় না। এরপরও অনেকেই বন্ধুদের সাথে দীর্ঘ সময় আড্ডা দিয়ে থাকে। কলেজের বন্ধুদের সাথে দীর্ঘদিন ধরে যোগাযোগ কন্টিনিউ থাকে। যেহেতু কলেজের বন্ধুরা তৈরি হয় আমরা যখন অনেকটা বড় হয়ে যাই তারপর।

এখানে যা যা পাবেন

১. স্কুলের বন্ধুদের নিয়ে ফেসবুক পোস্ট
২. স্কুলের বন্ধুদের নিয়ে উক্তি ও কবিতা

স্কুলের বন্ধুদের নিয়ে ফেসবুক পোস্ট

একটা জিনিস লক্ষ্য করবেন, আপনি হয়তো কাজের চাপে দুমড়ে মুচড়ে পড়েছেন, অফিস ও সংসারের ব্যস্ততায় দু মিনিট সময় বের করতে পারছেন না। ক্লান্ত হয়ে রাস্তায় হেঁটে চলেছেন আপনি। হাঁটতে হাঁটতে হঠাৎ দেখা হল ক্লাস ফাইভের সেই ঘনিষ্ঠ বন্ধু কবিরের সাথে। আপনি বুঝতে পারবেন আপনার মনের গভীর থেকে অসম্ভব ভালো লাগা কাজ করছে। হঠাৎই আপনার মনের মধ্যে ভেসে উঠলো ক্লাস ফাইভের সেই মজার মজার স্মৃতিগুলো। আপনি আর কবির মিলে ক্লাস ফাঁকি দিয়ে কত জায়গায় ঘুরতে গেছেন সেই সব স্মৃতিগুলো একে একে আপনার মাথায় ঘুরছে। কথাগুলো কাল্পনিক হলেও বাস্তবে আমাদের সাথে কিন্তু এমনই ঘটে। স্কুল জীবনের বন্ধুদের সাথে দেখা হলে সত্যিই ভীষণ ভালো লাগা কাজ করে। আপনি যদি স্কুল জীবনের বন্ধুদের নিয়ে স্মৃতিচারণ করতে চান তাহলে এই ধরনের লেখা লিখতেই পারেন।

স্কুলের বন্ধুদের নিয়ে উক্তি ও কবিতা

স্কুলের বন্ধুরা যে কত স্পেশাল হয় তা আমরা বুঝতে পারবো বিভিন্ন লেখকের উপন্যাস ও ছোট গল্পগুলোতে। বন্ধু ছাড়া সত্যিই জীবন অসম্ভব। আর আপনার বন্ধু তৈরি হওয়ার প্রথম সিঁড়ি হলো স্কুল জীবন। লক্ষ্য করে দেখবেন আপনার বেশিরভাগ ঘনিষ্ঠ বন্ধুরা কিন্তু সেই স্কুল জীবনের।

Leave a Reply

Your email address will not be published.