বৃষ্টি নিয়ে রোমান্টিক স্ট্যাটাস ২০২২

বৃষ্টির দিনে কমবেশি আমরা সবাই ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে থাকি। বৃষ্টির দিনে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ার সময় আমরা স্ট্যাটাস লিখতে গিয়ে ভুল করে বসি অথবা কথা খুঁজে পাই না। বৃষ্টির দিনে এমন কিছু স্ট্যাটাস আপনি দিতে পারেন যেগুলো দেখে আপনার বন্ধুরা চমকে যাবে। আপনি যদি বৃষ্টির দিনে রোমান্টিক স্ট্যাটাস দিতে চান এবং রোমান্টিক স্ট্যাটাস গুলো সংগ্রহ করে নিতে চান তবে আমাদের এই পেজটি ভিজিট করে আপনি খুব বুদ্ধিমানের কাজ করেছেন। আমাদের এই পোষ্টের মাধ্যমে আমরা আপনাদের সাথে বৃষ্টির দিনের কিছু রোমান্টিক স্ট্যাটাস শেয়ার করব যেগুলো আপনারা নিজেদের ফেসবুক ওয়ালে ব্যবহার করতে পারবেন অথবা এই ধাঁচে নিজের স্ট্যাটাস লিখতে পারবেন।

প্রতিটি মানুষ রোমান্টিক হওয়ার চেষ্টা করে। একজন রোমান্টিক মানুষকেই আশেপাশের সকলেই পছন্দ করে এবং সবচেয়ে বেশি পছন্দ করে মেয়েরা। মেয়েদের কাছে আপনি যদি প্রিয় পাত্র হয়ে উঠতে চান তবে আপনাকে রোমান্টিক হতেই হবে। রোমান্টিক হলে আপনি অনেক মেয়ে বন্ধু পাবেন এবং আপনার একাকিত্ব ঘুচে যাবে। আপনি যদি অনেক চেষ্টা করার পরেও রোমান্টিক না হতে পারেন তবে আপনার জন্য আমরা অনেক পোস্ট লিখেছি যেগুলোতে রোমান্টিক হওয়ার অনেক হয়েছে। বৃষ্টির দিনে বেশিরভাগ মানুষই রোমান্টিক মুডে থাকে তাই চেষ্টা করতে হবে আপনিও যেন রোমান্টিক মুডে থেকে বৃষ্টি উপভোগ করতে পারেন। তো দেখা যাক বৃষ্টির দিনে আপনি কি ধরনের রোমান্টিক স্ট্যাটাসগুলো দিতে পারেন।

১. মেঘলা দিনে মনটা ভীষণ উতলা হয়ে আছে। প্রতিটি মুহূর্ত শুধু তোমার কথা ভাবছি। তোমার চোখ দুটো ভীষণ ভীষণ মনে পড়ছে। সেজে এক হঠাৎ বৃষ্টির দিনে তোমার মনে আছে কি? আমাদের প্রথম দেখা হয়েছিল। সেদিন তুমি একটি নীল ছাতা মাথায় দিয়ে রাস্তায় হাঁটছিলে, টিপটিপ বৃষ্টি পড়ছিল আর আমি একটি গাছের তলায় দাঁড়িয়ে নিজেকে বৃষ্টি থেকে বাঁচানোর চেষ্টা করছিলাম। হঠাৎ তোমার দিকে চোখ পড়ল, তুমি ছাতার নিচে দাঁড়িয়ে বাতাস আটকানোর চেষ্টা করছিলে। তোমাকে দেখা মাত্রই আমার মনের ভেতর রঙিন বাতাস বইতে শুরু করে। মনে হচ্ছিল এই তো সেই, যাকে আমি খুঁজেছি প্রতিটি মুহূর্ত। তুমি হয়তো জানো বৃষ্টি আমার কতটা পছন্দ। আর আমার পছন্দের এমন একটি দিনে তোমার সাথে হঠাৎ দেখা হবে এমনটা কখনো কল্পনা করিনি তবে ভীষণভাবে চেয়েছি। এ যেন স্বপ্নের মত ছিল তোমার সাথে আমার প্রথম দেখা। এরপর আমাদের পরিচয় একসাথে হাজারো মুহূর্ত কাটানো।

তোমার কি মনে আছে? আমাদের প্রথম বৃষ্টিতে ভেজার কথা। সেদিন দুজনের কাছে ছাতা থাকা সত্ত্বেও দুজনেই বৃষ্টিতে ভিজেছিলাম পাশাপাশি হাত ধরে।

আজ অনেকটা বছর তোমার সাথে বৃষ্টিতে ভেজা হয় না। সংসারের ঘানি টানতে টানতে দুজনে একেবারে বুকে পাহাড় চাপা দিয়ে দিন কাটাচ্ছি। আবারো যদি সময় আসে তোমার সাথে বৃষ্টিতে ভিজতে চাই, দুজনে পাশাপাশি হাটতে চাই। একগুচ্ছ পদম ফুল তোমার হাতে ধরিয়ে দিয়ে ভালোবাসি বলতে চাই। তুমি কি দেবে সেই সুযোগ? আমি একবার নয়, বারবার এমন সুযোগ পেতে চাই।

২. তখন আমি বৃষ্টি খুব একটা পছন্দ করতাম না। তুমি ছিলে একেবারে বাঁধন হারা। নিজের জীবনকে কিভাবে উপভোগ করতে হয় তা আমি শিখেছিলাম তোমার কাছ থেকে। তুমি আমাকে ভালোবাসা শিখিয়েছিলে, কিভাবে একটা মানুষের মায়া পড়তে হয় তা তোমার কাছে শেখা। বিশ্বাস কর, আমি কখনোই তোমার মায়ায় পড়তে চাই নি।

আমার মনে হয় কি জানো, তুমি নিশ্চয়ই কোন জাদু জানো। জাদু দিয়ে আমাকে বশ করে রেখেছে তোমার মায়ায়। আমি বৃষ্টি পছন্দ করতাম না কিন্তু তুমি ভীষণ পছন্দ করতে। যে মানুষ বৃষ্টির দিনে অনেক অনেক বিরক্ত হত সেই মানুষকে তুমি ভরদুপুরে ঝুম বৃষ্টিতে ভিজতে শিখিয়েছো। তুমি আমাকে শিখিয়েছো বৃষ্টির ঝমঝম শব্দ কিভাবে উপভোগ করতে হয়। দুজনে একসাথে বসে টিনের চালে বৃষ্টির ঝুম ঝুম শব্দ শুনে শুনে কাটিয়েছি ঘন্টার পর ঘন্টা। সত্যিই, তোমাকে আর বৃষ্টিকে একসাথে পাওয়া আমার জীবনের সবচেয়ে বড় উপহার ছিলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *